বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ১২:০৩ অপরাহ্ন
Title :
গাজীপুর এর কালীগঞ্জে চাঁদা না দেয়ায় নির্মাণ শ্রমিক ঠিকাদারকে কুপিয়ে গুরুত্ব আহত চুয়াডাংগা জেলার জীবননগরে ফেন্সিডিল ও মোটরসাইকেলসহ বশির সরদার গ্রেফতার জীবননগর থানা পুলিশের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার-১ খাতুনগঞ্জের চাল চুরি হয়ে ঘুরে আবার ফিরে যায় খাতুনগঞ্জেই চুয়েটে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের প্রকৌশলীদের দক্ষতা উন্নয়নে আইটিইই-এর প্রভাব ও গুরুত্ব বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত নড়াইলের পল্লীতে বিশাল বাড়োয়ারি পূজা অনুষ্ঠিত মুখোমুখি সংঘর্ষে যুবক নিহত চট্টগ্রাম মহানগরে পাচারকালে ৩,৫০০(তিন হাজার পাঁচশত ) পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ২ জন দামুড়হুদা থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে ১২২ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ গাঁজাসহ দম্পতি গ্রেফতার জামাই কিনে, বউ বেচে




টঙ্গীতে মাজার বস্তির পাঁচশর বেশি ঘর আগুনে পুড়ে ছাই

মোঃ নুরুজ্জামান শেখ, গাজীপুর মহানগর
  • Update Time : শনিবার, ২৭ নভেম্বর, ২০২১
  • ৭২ Time View

দেলোয়ারা বেগম ৪৫ থেকে ৫০ বছরের এই নারীর আত্ম চিৎকারে ভাড়ি হয়ে উঠছে মাজার বস্তির আকাশ বাতাস। মুখে শুধু একাটাই শব্দ আমার কিছু নাই আমার সব কিছু শেষ। এখন আমি কিভাবে চলবো। তার মেয়ে ফাতেমার চোখে পানি যেনো শেষ হওয়ার কোন লক্ষন নেই। একে অপরকে জরিয়ে ধরে বিলাপ করে কাঁদছে মা মেয়ে।

বস্তিবাসীর কেউ গৃহকর্মীর কাজ, কেউ সিটি কর্পোরেশনের সড়ক ঝাড়ু দেয় ও আবার কেউ ঠিকা বা ভ্যান-রিকশা শ্রমিক। সম্বল বলতে বিপদের জন্য ঘরে জমানো অল্প স্বল্প টাকা, রান্নার চাল-ডাল, আর ঘরের জিনিসপত্র।

মাজার বস্তিবাসীর সেই সম্বলটুকু আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে পুড়ে গেছে বস্তিবাসীর পাঁচশর বেশি ঘর। সেই সঙ্গে পুড়েছে শেষ সম্বলটুকু। আর তাতেই মাথায় হাত পড়েছে বস্তিবাসীর।

গতকাল শনিবার ভোর ৪টার দিকে সেনাকল্যাণ ভবনের পাশে বস্তিটির একটি ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। টঙ্গী ছাড়াও ঢাকার কুর্মিটোলা ও উত্তরার ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিট দুই ঘণ্টার চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

সরজমিনে দেখা যায়, নির্ঘুম রাত কাটানো, খোলা আকাশের নিচে ঠাঁই পাওয়া বস্তিবাসীর চোখ এখন ছাইয়ের স্তুপে। ধ্বংসস্তুপ থেকে কুড়িয়ে নিচ্ছেন বেছে যাওয়া ন্যূনতম সম্বলটুকু। বিধ্বস্ত বস্তিবাসীর কেউ কেউ ক্ষুধা পেটে অপেক্ষা করছেন ত্রাণের খাবারের। দরিদ্র মানুষগুলোর মাথা গোঁজার ঠাঁই বলতেই ছিল ওই বস্তির ঝুপড়ি ঘরগুলো। স্থানীয় অনেক নেতাকর্মীরা খাবারের ব্যবস্থা করলেও ক্ষতিগ্রস্তদের অভিযোগ তারা সকাল থেকে এখন পর্যন্ত কোন খাবার পাননি। একই বস্তিতে ২০০৫ সালেও ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

ফুলবানু বলেন, স্বামী অটোরিকশা চালক আর তিনি পিঠা বিক্রি করেন। স্বামী স্ত্রীর দু’জনের অয়ের সিংহ ভাগ ছেলে ফয়সালের পড়াশোনার খরচ আর ভবিষ্যতে তৈরি করার লক্ষে মাটির তৈরি ব্যাংকে জামানো হতে টাকা। আগুনে তারও সব কিছুই খোয়া গেছে। কি হবে তার ছেলের ভবিষ্যত।

টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা ইকবাল হাসান বলেন, ভোরে মাজার বস্তিতে আগুনের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের ৯টি ইউনিট সেখানে পৌঁছে কাজ শুরু করে। তাদের দুই ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। প্রাথমিকভাবে কোনো হতাহত না থাকলেও আগুনে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বস্তির পাঁচশর বেশি ঘর এবং সব মালামাল আগুনে পুড়ে গেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড. আজমত উল্লাহ খান ও পেনেল মেয়র আব্দুল আলিমসহ আরও অনেকে।

গাজীপুর সিটি কর্পোশেনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র আসাদুর রহমান কিরণ বস্তি পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য সাত দিনের খাদ্য কর্মসূচি নেয়া হয়েছে। তাদের তিন বেলা খাবার দেয়া হবে। পরে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এবং সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে তাদের পুনর্বাসন করা হবে।




More News Of This Category




© All rights reserved © 2020 Dainik Dashar Manchitra
Design & Developed by: ATOZ IT HOST
Tuhin